নজরে ২১

বিরোধী শিবিরে ফের ভাঙ্গন, নিজেদের দল ছেড়ে তৃনমূলে যোগ ব্লক ও জেলা পর্যায়ের একগুচ্ছ নেতার।

বিজেপির এক গুচ্ছ ব্লক ও জেলা স্তরের নেতা যোগ দিলেন তৃণমূল কংগ্রেসে। আজ জেলা তৃণমূল ভবনে এই নেতাদের পাশাপাশি এক কংগ্রেস নেতাও তৃণমূল শিবিরে নাম লেখান। যোগদানকারীদের হাতে দলীয় পতাকা তুলেদেন জেলা তৃণমূল সভাপতি শ্যামল সাঁতরা।

বিরোধী শিবিরে ফের ভাঙ্গন, নিজেদের দল ছেড়ে তৃনমূলে যোগ ব্লক ও জেলা পর্যায়ের একগুচ্ছ নেতার।
X

বাঁকুড়া২৪X৭প্রতিবেদন : বিধানসভা ভোটকে সামনে রেখে জেলার বিরোধী শিবিরের নেতাদের নিজেদের দলে ভিড়িয়ে সাংগঠনিক শক্তি বৃদ্ধির কৌশল নিয়েছে জেলা তৃণমূল কংগ্রেস। তারই অঙ্গ হিসেবে আজ জেলা তৃণমূল ভবনে বিজেপি ও জাতীয় কংগ্রেসের এক গুচ্ছ ব্লক ও জেলা পর্যায়ের নেতা আনুষ্ঠানিক ভাবে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দিলেন। এই যোগদানকারীদের হাতে দলীয় পতাকা তুলে দেন জেলা তৃণমূল সভাপতি শ্যামল সাঁতরা। এদিন জেলার বিভিন্ন ব্লক থেকে ব্লকে এমনকি জেলা কমিটিতেও ছিলেন এমন কিছু বিজেপি নেতা তৃণমূল শিবিরে যোগ দেন। এই যোগদানকারীদের মধ্যে বিজেপির প্রাক্তন ব্লক সভাপতি, ও জেলা কমিটির সদস্য এমন নেতৃত্ব স্থানীয় কয়েকজন আছেন। আছেন জাতীয় কংগ্রেসের নেতা এবং সমাজসেবী, ও এক সাংবাদিক।



তাদের দাবী, তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আদর্শে মানুষের জন্য কাজ করার তাগিদেই তৃণমূল কংগ্রেসে যোগদান করেছেন। যদিও বিজেপির জেলা নেতৃত্বের পাল্টা দাবী যারা যোগদান করেছেন তাদের সিংহভাগই বর্তমানে কোন বিজেপির সাংগঠনিক পদাধিকারী নন।বা অনেকেই দল ও মানুষের থেকে দীর্ঘদিন ধরে বিচ্ছিন্ন হয়ে আছেন। ফলে তারা কে কোথায় গেল তাতে বিজেপির কিছু এসে যায় না।

এদিকে,শাসক ও বিরোধী শিবিরের দল বদলের প্রতিযোগিতার হিড়িক আম জনতা কি ভাবে নেয় বা তার প্রতিফলন ভোট বাক্সে কতখানি প্রভাব ফেলবে তা ভোটের ফলাফলেই টের পাওয়া যাবে।

দেখুন 🎦 ভিডিও। 👇


Next Story