নজরে ২১

রাষ্টোদ্রোহ মামলা আছে যাদের বিরুদ্ধে তাদের হাত ধরেই পাহাড়ে চড়তে চাইছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, বিষ্ণুপুরে চা চক্রে যোগ দিতে এসে তোপ দিলীপ ঘোষের।

রাষ্টোদ্রোহ মামলা আছে যাদের বিরুদ্ধে তাদের হাত ধরেই পাহাড়ে চড়তে চাইছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, বিষ্ণুপুরে চা চক্রে যোগ দিতে এসে তোপ দিলীপ ঘোষের।
X

বাঁকুড়া২৪X৭প্রতিবেদন : পাহাড়ের নয়া রাজনৈতিক সমীকরণ প্রসঙ্গে এবার সরাসরি রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে তোপ দাগলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। তিনি এদিন বিষ্ণুপুরে চা- চর্চায় যোগ দিতে এসে সাংবাদিক বৈঠকে বলেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের এখন এত দূর্দশা যে যাদের বিরুদ্ধে ত রাষ্ট্রদ্রোহ মামলা আছে তাদেরকেই তিনি আবার নেতা বানাচ্ছেন। এক সময় পাহাড়ে যারা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে লড়াই করেছিলেন তাদের হাত ধরেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় পাহাড় উঠতে চাইছেন। এখানেও যে ছত্রধর মাহাতো কে রাষ্টদ্রোহ মামলা দেওয়া হয়েছিল তাকেও তিনি নেতা বানিয়েছেন। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এখন দেশদ্রোহীদের নিয়ে বাংলায় ক্ষমতা দখলের জন্য মরিয়া। পাহাড়ের মানুষ যাদের অত্যাচারে পাহাড় ছাড়া হয়ে গেছে। পাহাড়ের জীবন যাদের জন্য স্বাভাবিক ছন্দ হারিয়েছে। তাদের হাত ধরে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কোন লাভ ওঠাতে পারবেন না। পাহাড়ে কোন দিনই তৃণমূলের ঝান্ডা উড়বে না । পাহাড়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কে পুলিশ দিয়েই তৃণমূলের ঝান্ডা তোলাতে হবে। পাহাড়ের নয়া রাজনৈতিক সমীকরণে আখেরে বিজেপিই ভোটে বাজীমাত করবেন বলেও দাবী করেন দিলীপ বাবু।

এদিনের এই চা চক্রে বিষ্ণুপুরের সাংসদ সৌমিত্র খাঁও উপস্থিত ছিলেন।দিলীপ ঘোষ বিষ্ণুপুরের মানুষের সাথে খোলা মেলা আলোচনায় তাদের সুবিধে,আসুবিধের আদান প্রদান করেন। পরে ছিন্নমস্তা মন্দিরে পুজোও দেন তিনি। বিকেলে জয়পুরে তার জনসভাও রয়েছে।

দেখুন 🎦 ভিডিও। 👇


Next Story