নিখোঁজ রোগীকে পুলিশ উদ্ধার করে, ফের হাসপাতালে ভর্তিকরার ৫ ঘন্টার মধ্যেই, মৃত রোগী ! হাসপাতালের ভুমিকা নিয়ে উঠল প্রশ্ন ?

নিখোঁজ রোগীকে  পুলিশ উদ্ধার করে, ফের হাসপাতালে ভর্তিকরার ৫ ঘন্টার মধ্যেই, মৃত রোগী ! হাসপাতালের  ভুমিকা নিয়ে উঠল প্রশ্ন ?
X

বাঁকুড়া২৪X৭প্রতিবেদন :হাসপাতাল থেকে নিখোঁজ হওয়া রোগীকে পুলিশ উদ্ধার করে ফের হাসপাতালে ভর্তি করার ঘন্টা পাঁচেক পরই মৃত্যু হল ওই বছর ৪৯ (অানুমানিক) বয়সী অজ্ঞাত পরিচিত রোগীর ।

এই ঘটনায় হাসপাতালের বেহাল নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়ে প্রশ্ন ওঠার পাশাপাশি, এবার চিকিৎসায় গাফিলতিরও অভিযোগ উঠল!

প্রসঙ্গত, শুক্রবার সকালে বাঁকুড়ার পুয়াবাগান এলাকায় রাস্তার ধারে জমির মধ্যে পড়ে থাকতে দেখা যায় এই মুমূর্ষু রোগীটিকে।শরীরে তার ক্যাথিটার লাগানো ছিল। পরনে, বলতে কেবল একটি হাফপ্যান্ট।খালি গায়ে জীর্ণ রোগীটিকে পড়ে থাকতে দেখে, এলাকায় কর্তব্যরত ট্রাফিক পুলিশ কর্মীদের ঘটনা জানায় স্থানীয়রা। খবর যায় বাঁকুড়া ট্রাফিক অফিসেও।এরপর ট্রাফিক পুলিশের এম্বুলেন্স করে ভর্তি করে বাঁকুড়া মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে।সেখানে মেডিসিন ওয়ার্ডে ভর্তি করে তার চিকিৎসা শুরু হয় ঠিকই।কিন্তু শেষরক্ষা হয়নি!

এদিনই দুপুর সাড়ে ৩ টা নাগাদ ওই রোগীর মৃত্যু হয় বলে জানিয়েছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।এদিন সন্ধ্যা পর্যন্ত মৃত রোগীর পরিচয় জানা যায় নি।

বাঁকুড়া ট্রাফিক পুলিশের আই সি সব্যসাচী মুখোপাধ্যায় বলেন, উদ্ধারের সময় মুমূর্ষু রোগীটি ঠিকমত কথা বলতে পারেনি। তাই, তার নাম পরিচয় জানা যায়নি।

বাঁকুড়া মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ভারপ্রাপ্ত সুপার দিলীপ খাটুয়ার দাবী,হাসপাতালে নিয়ে আসার পরেও রোগী তার নাম পরিচয় জানাতে পারেনি।তাকে মেডিসিন ওয়ার্ডে ভর্তি করে চিকিৎসা শুরু হয়েছিল। চিকিৎসার গাফিলতির অভিযোগ তোলা ঠিক নয়। আমরা তাকে বাঁচানোর জন্য সব রকম চেষ্টা চালিয়েছি।

Next Story