শহরে গুলি করে যুবক খুনের তদন্তে নয়া মোড়, অভিযুক্ত তোতনের বাড়ী থেকে উদ্ধার ৭ এম,এম পিস্তল ও দুটি ম্যাগাজিন।

পুলিশ হেফাজতে জিজ্ঞাসাবাদ করে খুনে ব্যবহৃত আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধারের চেষ্টা চালায় পুলিশ। জিজ্ঞাসাবাদে মেলা সুত্র পেয়ে, সেই মতো তোতন ওরফে বীরাজ মোহন দুয়ারীর রামপুরের বাড়ীতে তল্লাসি চালিয়ে পুলিশ একটি ৭ এম,এম পিস্তল ও দুটি ম্যাগাজিন উদ্ধার করে।

শহরে গুলি করে যুবক খুনের তদন্তে নয়া মোড়, অভিযুক্ত তোতনের বাড়ী থেকে উদ্ধার ৭ এম,এম পিস্তল ও দুটি ম্যাগাজিন।
X

বাঁকুড়া২৪X৭প্রতিবেদন : শহরের সতীঘাটের কাছে কুসুম সিনেমা হল লাগোয়া নির্মীয়মান মন্দিরে গুলি করে যুবক খুনের ঘটনার তদন্তে নয়া মোড়।পুলিশ হেফাজতে থাকা অভিযুক্ত তোতন ওরফে বীরাজ মোহন দুয়ারীর বাড়ী থেকে পুলিশ একটি ৭ এম,এম পিস্তল ও দুটি ম্যাগাজিন উদ্ধার করল।


আজ সন্ধ্যে বেলায় বাঁকুড়া সদর থানার তদন্তকারী পুলিশের একটি দল তোতনকে সাথে নিয়ে তার রামপুরের বাড়িতে এসে তল্লাসি চালায়। কিছুক্ষন তল্লাসির পরই মেলে এই ৭ এম,এমের পিস্তল এবং দুটি ম্যাগাজিন। পুলিশ এই আগ্নেয়াস্ত্র বাজেয়াপ্ত করে। মনে করা হচ্ছে এই পিস্তল থেকেই গুলি করে শহরের রক্ষাকালীতলা এলাকার বাসিন্দা সোমনাথ দে (৩৫)কে খুন করা হয়।


প্রসঙ্গত, তদন্তে পাওয়া সুত্র ধরে তোতন কে তার মোবাইল টাওয়ার চিহ্ণিত করে দেওঘরে গিয়ে বাঁকুড়া পুলিশ ১৩ ডিসেম্বর ধরে ফেলে। এবং ১৪ ডিসেম্বর বাঁকুড়া আদালতে তোলা হলে তাকে ১০ দিনের হেফাজতের নির্দেশ দেন বিচারক।এরপর পুলিশ হেফাজতে জিজ্ঞাসাবাদ করে খুনে ব্যবহৃত আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধারের চেষ্টা চালায় পুলিশ। জিজ্ঞাসাবাদে মেলা সুত্র পেয়ে, সেই মতো তোতনের রামপুরের বাড়ীতে হানা দিয়ে পুলিশ একটি ৭ এম,এম পিস্তল ও দুটি ম্যাগাজিন উদ্ধার করে। এই বেআইনী আগ্নেয়াস্ত্র কি ভাবে তোতনের হাতে এল তাও খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

দেখুন 🎦 ভিডিও। 👇



Next Story