কয়লা পাচার কান্ড, বাঁকুড়া সদর থানার আই,সি কে ম্যারাথন জেরা সিবিআইয়ের।

কয়লা পাচার কান্ড, বাঁকুড়া সদর থানার আই,সি কে ম্যারাথন জেরা সিবিআইয়ের।
X

বাঁকুড়া২৪X৭প্রতিবেদন : কয়লা পাচার কাণ্ডে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য অবশেষে নিজাম প্যালেসের সিবিআই দপ্তরর হাজিরা দিলেন বাঁকুড়া সদর থানার আইসি আশোক মিশ্র। আজ তিনি হাজিরা দিলে, সিবিআই প্রায় ৮ ঘন্টার ম্যারাথন জেরা চালায়। সুত্রের খবর টানা ম্যারাথন জেরা চললেও এই ঝানু পুলিশ অফিসার অশোক মিশ্র মচকালেও ভাঙ্গেন নি!


ফলে, সিবিয়াই আধিকারিকরা জেরা চালিয়ে হয়রান হয়ে পড়লেও তেমন কিছু তথ্য পাননি তারা, যা তদন্তে গতি আনবে। বরং আশোক বাবু অনেক প্রশ্নের উত্তর কৌশলে এড়িয়ে গিয়ে নিজেকে বাঁচানোর চেষ্টা চালিয়ে গেছেন বলে সুত্রের দাবী। এর আগে আইসি বাঁকুড়া আশোক মিশ্রকে সিবিআই তলব করলেও তিনি প্রথমে হাজিরা এড়িয়ে যান। এরপর শুক্রবার ফের নিজাম প্যালেসে হাজিরা দেওয়ার নোটিশ পাঠায় সিবিআই।

সেইমতো আজ হাজির হন আইসি। সূত্রের খবর তৃণমূল যুব নেতা বিনয় মিশ্রের সম্পর্কে দাদা হন আশোক মিশ্র। কয়লা ও গরু পাচার কাণ্ডের তদন্তে নেমে তৃণমূল নেতা বিনয় মিশ্রের যুক্ত থাকার ঘটনা প্রকাশ্যে আসতেই বিনয়কে তলব করে নোটিশ দেয় সিবিআই। কিন্তু বিনয় হাজির হন নি। তার বাড়ীতেও সিবিআই তল্লাশি চালায়। তবুও এখনও অধরা বিনয় মিশ্র। তবে বিনয়ের দাদা বাাঁকুড়া সদর থানার আইসি অশোক মিশ্র আজ সিবিআইয়ের তলবে নিজাম প্যালেসে হাজিরা দেন।


সিবিআইয়ের সুত্রে খবর, ফের আশোক বাবুকে তথ্য জানতে জেরা করা হতে পারে। সেই জন্য আরও বার কয়েক ডাকা হবে তাকে।

পাশাপাশি, জানা যাচ্ছে ,প্রভাবশালীদর কাছে কয়লা পাচার সিন্ডিকেটের টাকা পৌঁছানোর কাজে অশোক বাবুর কী ভুমিকা ছিল বা কিভাবে সেই কাজ তিনি করতেন তা জানতেই এদিন তাকে প্রায় ৮ ঘন্টা ধরে জেরা করেন সিবিআই আধিকারিককরা।

Next Story