জগদ্দলা গোড়াবাড়িতে দুয়ারে সরকার শিবিরে বজ্রপাত,এক কিশোর সহ আহত ১০, এক বৃদ্ধের অবস্থা গুরুতর।

জগদ্দলা গোড়াবাড়িতে দুয়ারে সরকার শিবিরে বজ্রপাত,এক কিশোর সহ আহত ১০, এক বৃদ্ধের অবস্থা গুরুতর।
X

বাঁকুড়া২৪X৭প্রতিবেদন : ভরা ভীড়ের মধ্যেই দুয়ারে সরকার শিবিরে বজ্রাঘাত! একলপ্তে আহত হলেন ১০ জন। আহতদের মধ্যে এক বছর ১৫ এর কিশোরও যেমন আছে,তেমনি রয়েছেন এক ৭২ বছরের বৃদ্ধ। বাকী আহত ৮ জনই মহিলা। আজ বাঁকুড়া ১ নাম্বার ব্লকের জগদল্লা গোড়াবাড়ীর মহাত্মা গান্ধী স্মৃতি উচ্চ বিদ্যালয়ের শিবিরে ঘটে এই দুর্ঘটনা। এদিন এই এলাকায় ছিল দুয়ারে সরকার শিবিরের শেষ দিন। তাই বেলা হতেই ভীড় বাড়তে থাকে শিবিরে। বৃষ্টি পড়ায় সেই সময় অধিকাংশ মানুষ ছাতা মাথায় লাইনে দাঁড়িয়ে ছিলেন। আচমকা বাজ পড়তেই সবার ছাতার স্টিলের হাতল ঝলমলিয়ে ওঠে। চোখ ধাঁধানো আলো আর বিকট শব্দে মানুষ আতঙ্কে আর্ত চিৎকার জুড়ে দেন। মূহুর্তের মধ্যে সকলে এদিক,সেদিক ছিটকে পড়ে যান।

অল্পক্ষণ পর কেও হাতে,কেও পায়ে ঝিনঝিন অনুভূতি টের পান। অনেকের ভয়ে কথা বন্ধ হয়ে যায়। তড়িঘড়ি আহত ১০ জনকে আঁচুড়ি প্রাথমিক স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে গিয়ে ভর্তি ক।রা হয়। সেখানে সুবল বাঙ্গাল (৭২) নামে এক বৃদ্ধের অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাকে বাঁকুড়া সম্মিলনী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।


বাকি ৯ জনের আঁচুড়ি স্বাস্থ্য কেন্দ্রেই চিকিৎসা চলছে। বছর ১৫ সোমু বাউরী বা বছর ২৭ এর গৃহবধূ ঝুম্পা কুম্ভকার হাসপাতালের বেডে বসে বাঁকুড়া২৪X৭ কে জানালেন সেই ভয়াবহ মুহূর্তের অনুভূতির পাশাপাশি,মৃত্যুর কাছাকাছি পৌঁছেও মৃত্যুকে জয় করার বিরল অভিজ্ঞতার কথা।অন্যদিকে,আজ বিকেলে আঁচুড়ি স্বাস্থ্য কেন্দ্রে আহতদের দেখতে যান বাঁকুড়া ১ নাম্বার ব্লকের বিডিও অঞ্জন চৌধুরী। তার সাথে ছিলেন বাঁকুড়া ১ নাম্বার ব্লকের বিএমওএইচ অরিজিৎ কুন্ডু। তারা আহতদের সাথে কথা বলেন এবং তাদের চিকিৎসা সংক্রান্ত খোঁজ, খবর নেন।

স্বাস্থ্য কেন্দ্র সুত্রে জানাগেছে, এখানে ভর্তি ৯ জনের অবস্থা স্থিতিশীল। তাদের ভয়ের কিছু নেই। একমাত্র বৃদ্ধ সুবল বাবুর অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাকে বাঁকুড়া মেডিকেলে রেফার করা হয়েছে। জেলা প্রশাসনের কর্তারাও আহতদের চিকিৎসা সংক্রান্ত ব্যবস্থা মনিটারিং করছেন।জেলা প্রশাসন সুত্রে আরও জানা গেছে আহতদের মধ্যে ৯ জন বিপদমুক্ত। তবে তাদের পর্যবেক্ষণে রাখতেই স্বাস্থ্য কেন্দ্রে এখনও রাখা হয়েছে। আহত সকলের চিকিৎসার যাবতীয় দায়িত্ব পালন করবে জেলা প্রশাসন।

👁️দেখুন 🎦ভিডিও। 👇


Next Story