শিশু পাচারে অভিযুক্ত প্রিন্সিপালের সাথে বাঁকুড়ার সংসদের ছবি টুইট করে খোঁচা মন্ত্রী শশী পাঁজার,পাল্টা জবাব দিলেন সুভাষ সরকার।

শিশু পাচারে অভিযুক্ত প্রিন্সিপালের সাথে বাঁকুড়ার সংসদের ছবি টুইট করে খোঁচা মন্ত্রী শশী পাঁজার,পাল্টা জবাব দিলেন সুভাষ সরকার।
X

বাঁকুড়া২৪X৭প্রতিবেদন : শিশু পাচার কান্ডের পান্ডা বাঁকুড়ার জহওর নবোদয় বিদ্যালয়ের আধ্যক্ষ কমল কুমার রাজোরিয়া সাথে কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী তথা বাঁকুড়া'র সাংসদ সুভাষ সরকারের একটি অনুষ্ঠানের ছবি পোস্ট করে টুইটে বিঁধলেন রাজ্যের নারী,শিশু ও সমাজকল্যাণ মন্ত্রী শশী পাঁজা। তার টুইটে লেখেন, শিশু পাচার চক্রের অভিযুক্ত অধ্যক্ষের সাথে সুভাষ সরকারের সংযোগ যথেষ্ট উদ্বেগজনক। বিজেপি কি এই সব অপরাধীদের আশ্রয় দেয়? সেই প্রশ্নও তোলেন শশী পাঁজা। এর পরই বাংলার রাজনীতি সরগরম হয়ে ওঠে। সাংবাদিক বৈঠক করে সুভাষ বাবু পালটা শশী পাঁজা সহ তৃণমূলের বিরুদ্ধে তোপ দাগেন। সুভাষ বাবু বলেন, এই ঘটনায় দোষীরা উপযুক্ত শাস্তি পান এটা তিনিও চান।


তৃণমুলের এই আচরণ বা টুইট নিয়ে তার মাথাব্যাথা নেই। আর তার যে ছবি পোস্ট করা হয়েছে, ওটা স্থানীয় স্তরে একটি গ্রামে বাচ্চাদের খাতা,পেনসিল বিলির অনুষ্ঠান ছিল। সেখানে ওই প্রিন্সিপালও আমন্ত্রিত ছিলেন। একই ভাবে তিনিও আমন্ত্রিত হয়ে সাংসাদ হিসেবে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। এই প্রসঙ্গে তৃণমুলকে পালটা খোঁচা দিতেও ছাড়েন নি সুভাষ বাবু। তিনি বলেন তৃণমূলের নেতারা ভুয়ো আইএসের সাথে যে ভাবে জড়িত এটা কিন্তু তেমন নয় এই প্রিন্সিপাল ভুয়ো নন। তবে তিনি সাফ জানান,এই ঘটনার তদন্ত করে পুলিশ দোষীদের চিহ্ণিত করে যেন শাস্তি দেওয়া হয় তার জন্য আধিকারিকদের সাথে কথাও বলেছেন। কারো পাশে একটা ছবি থাকার অর্থ এই নয় যে তার সব অন্যায় কে প্রশয় দেওয়া।

আর বিজেপি কোন ভাবেই কোন অপরাধীদের আশ্রয় দেয়না।এমন দাবী করে পালটা তৃণমূল কংগ্রেসের এই টুইট রাজনীতিকে কটাক্ষও করেন কেন্দ্রীয় শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী তথা বাঁকুড়ার সাংসদ ডাঃ সুভাষ সরকার।

👁️দেখুন 🎦 ভিডিও। 👇



Next Story