অমানিশায় শক্তির আরাধনা,অন্য ভূমিকায় সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়।

কালীপুজোর দিন অন্য ভূমিকায় সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়। নিজের পারিবারিক কালীপূজোয় তিনিই অন্যতম পুরোহিত হিসেবে দেবী পুজো সারেন। এই সাংসদের অমানিশায় শক্তি আরাধনার সাত সতেরো তুলে ধরা হল এই প্রতিবেদনে।

অমানিশায় শক্তির আরাধনা,অন্য ভূমিকায় সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়।
X

বাঁকুড়া২৪X৭প্রতিবেদন : তৃণমূলের ডাকাবুকো সাংসদ হিসেবে যেমন খ্যাতি আছে কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের তেমনি বিতর্কিত মন্তব্য করে সংবাদ শিরোনামে উঠে আসেন আকছার। কিন্তু কালীপুজোর দিন তিনি একেবারে ভিন্ন ভূমিকায়। পুরোহিতের বেশে শক্তির আরাধনায় মাতেন তিনি। দীর্ঘ দিন ধরে তার বাঁকুড়া শহরের মোলডুবকায় পৈতৃক বাড়ীতে পারিবারিক কালীপূজোতে নিজেই অন্যতম পুরোহিত হিসেবে পুজো করে আসছেন।


ব্রাহ্মণ বেশে শক্তির আরাধনার মন্ত্র পড়ে দেবীর পুজো সারেন কল্যাণ বাবু। পুজো চলে রাতভর। পারিবারিক রিতী মেনে এই বাড়ীর সকলেই এমন কি বাড়ীর ছোটরাও পুজোর দিন নির্জলা উপবাসে থাকে। পুজোর শেষে মায়ের প্রসাদ গ্রহণ করে উপবাস ভঙ্গ করেন তারা। আর এই সময় পরিবারের যারা বাইরে থাকেন, তারাও বাড়ী ফেরেন।অংশ নেন কালীপুজোয়। এটা দীর্ঘদিন ধরে চলে আসছে এই বন্দ্যোপাধ্যায় পরিবারে।

সাংসদ জায়া ছবি বন্দ্যোপাধ্যায় জানালেন, তাদের এই পারিবারিক পুজোর আচার,অনুষ্টানের সাত- সতেরো।তিনি বলেন,কালীপুজোয় বাঁকুড়ার এই বাড়ী ফি বছর উৎসব ক্ষেত্রে পরিণত হয়। তবে,এবার কোভিড আবহে তাতে খানিক ভাটা পড়েছে। কিন্তু পুজো হচ্ছে নিষ্ঠার সাথেই।

দেখুন 🎦 ভিডিও। 👇


Next Story