ছেলেধরা সন্দেহে স্কুলের মধ্যেই এক মানসিক ভারসাম্যহীন ব্যক্তি কে গনপিটুনি, খবর পেয়ে, তাকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে পুলিশ।

ছেলেধরা সন্দেহে  স্কুলের মধ্যেই এক মানসিক ভারসাম্যহীন ব্যক্তি কে গনপিটুনি, খবর পেয়ে, তাকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে পুলিশ।
X

#বাঁকুড়া২৪X৭প্রতিবেদন :ছেলে ধরা সন্দেহে এক মানসিক ভারসাম্যহীন ব্যক্তিকে স্কুলের মধ্যেই দেওয়া হল বেধড়ক গন পিটুনি!

খবর পেয়েই বাঁকুড়া সদর থানার পুলিশ গিয়ে, গনপিটুনির হাত থেকে বাঁচিয়ে,তাকে, উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।

এই ঘটনায়, বেলবনির নেতাজী সুভাষ শিশু শিক্ষা কেন্দ্রে চাঞ্চল্য ছড়ায়।

স্কুল কতৃপক্ষের দাবী, প্রথমে গাছ কাটার নাম করে স্কুলে ঢোকে সে। তার পর, সন্দেহজনক ভাবে ছাত্রীদের শৌচাগারের কাছে ঘোরাঘুরি করায়, স্কুলের শিক্ষকরা স্থানীয়দের খবর দেয়। তারা, এসে জিজ্ঞাসাবাদ করায়, ওই ব্যক্তি অসংলগ্ন কথাবার্তা বলে। তখনই ছেলেধরা সন্দেহে পিটুনি শুরু করে দেন তারা।

পরে, পুলিশ গিয়ে ওই ব্যক্তিকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে এলেও,নাম,পরিচয় বলতে পারেনি সে।

Next Story