বনধ উপেক্ষা করে, বিদ্যাসাগর জয়ন্তীতে রক্তদানে সামিল হলেন প্রাথমিক শিক্ষক,শিক্ষিকারা। জেলার প্রাথমিক স্কুল গুলিতে বনধের কোন প্রভাব পড়েনি, জানালেন : প্রাথমিক সংসদের চেয়ারপার্সন রিঙ্কু বন্দ্যোপাধ্যায়।

বনধ উপেক্ষা করে, বিদ্যাসাগর জয়ন্তীতে রক্তদানে সামিল হলেন প্রাথমিক শিক্ষক,শিক্ষিকারা। জেলার প্রাথমিক স্কুল গুলিতে বনধের কোন প্রভাব পড়েনি, জানালেন : প্রাথমিক সংসদের চেয়ারপার্সন রিঙ্কু বন্দ্যোপাধ্যায়।
X

#বাঁকুড়া২৪X৭প্রতিবেদন : বনধ কে উপেক্ষা করে বিদ্যাসাগরের জন্ম জয়ন্তীতে প্রাথমিক শিক্ষক,শিক্ষিকারা রক্তদান শিবিরে যোগ দিয়ে নজীর গড়লেন।

প্রতি বছরই এই দিনটিতে রক্তদান শিবির,আলোচনা সভা,সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে বিদ্যাসাগরের জন্ম জয়ন্তী উদযাপন করে আসছে জেলা প্রাথমিক বিদ্যালয় সংসদ।

এবার এই দিনই বিজেপি রাজ্যব্যাপী ১২ঘন্টার বাংলা বনধের ডাক দেয়। তাই, বনধকে মোকাবিলা করে এই অনুষ্ঠানটিকে সাফল্য মন্ডিত করে তোলাটা বড়ো চ্যালেঞ্জ ছিল সংসদের কাছে। শেষে, অবশ্য বনধ উপেক্ষা করে, দল,মত নির্বিশেষে রেকর্ড সংখ্যক শিক্ষক,শিক্ষিকা রক্তদানে সামিল হয়ে নজির গড়লেন।

জেলা প্রাথমিক বিদ্যালয় সংসদের চেয়ারপার্সন রিঙ্কু বন্দ্যোপাধ্যায় আজকের কর্মসূচিতে ব্যাপক সাড়া মেলায় সকলকে কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন।

পাশাপাশি, তিনি জানান, আজ জেলার সব কটি প্রাথমিক বিদ্যালয় খোলা ছিল। কোথাও বনধের প্রভাব পড়েনি। স্বাভাবিক ভাবেই পঠন পাঠন চলে জেলার প্রাথমিক স্কুল গুলিতে।

রক্তদান ছাড়াও বিদ্যাসাগরের জীবনীর ওপর আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মধ্যদিয়ে ঈশ্বর চন্দ্র বিদ্যাসাগরের জন্ম জয়ন্তী উৎযাপন করা হয়।

#দেখুন ভিডিও।[embed]

Next Story