ব্রেকিং নিউজ

এক ছাত্রের আত্মহত্যার ঘটনায় অধ্যাপকের বিরুদ্ধে প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগে ছাত্র বিক্ষোভেে উত্তাল হল খ্রীস্টান কলেজ।

এক ছাত্রের আত্মহত্যার ঘটনায় অধ্যাপকের বিরুদ্ধে প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগে ছাত্র বিক্ষোভেে উত্তাল হল খ্রীস্টান কলেজ।
X

#বাঁকুড়া২৪X৭প্রতিবেদন : এক ছাত্রের আত্মহত্যার ঘটনায় কলেজের অধ্যাপকের বিরুদ্ধে পরোক্ষে প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগ তুলে বিক্ষোভে সামিল হল কলেছের ছাত্র,ছাত্রীরা। অধ্যক্ষ কে ঘেরাও করার পাশাপাশি ইংরাজী বিভাগে তান্ডব চালিয়ে অল্প বিস্তর ভাঙ্গচুরও চালায় বিক্ষোভরত পড়ুয়ারা। এই ঘটনার জেরে উত্তাল হয়ে উঠল বাঁকুড়া খ্রীস্টান কলেজ চত্ত্বর!

প্রসঙ্গত,বৃহস্পতিবার রাতে বিষ্ণুপুরের ঝাপড়মোড়ে নিজের বাড়ীতে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মঘাতী হয় দিব্যেন্দু চক্রবর্তী (১৯) নামে এক কলেজ ছাত্র।সে বাঁকুড়া শহরের খ্রীস্টান কলেজে ইংরাজী অর্নাসের প্রথম বর্ষের ছাত্র ছিল। কলেজের দেওয়াল পত্রিকাতে লেখা নিয়ে কলেজের সিনিয়র দিদিদের সাথে দিব্যেন্দুর বচসা হয়। তার জেরে, কলেজের ইংরাজী বিভাগের অধ্যাপক অয়ন মন্ডল রাত্রি এগারোটা নাগাদ দিব্যেন্দুকে হুমকী এস,এস,পাঠানোর পরই সে আত্মহত্যা করে বলে পরিবার সূত্রে দাবী করা হয়।এই ঘটনা প্রকাশ পেতেই তার সহপাঠীরা ক্ষোভে ফেটে পড়ে। জ কলেজে তারা পুরো ছাত্র,ছাত্রীদের সাথে নিয়ে ওই অধ্যাপকের বিরুদ্ধে আত্মহত্যায় প্ররোচনার অভিযোগ তুলে সরব হয়।চলে, তুমুল বিক্ষোভও।

মৃত ছাত্রের বাবা রতন চক্রবর্তী জানান, অধ্যাপক অয়ন মন্ডল ও কয়েকজন সিনিয়ার ছাত্রীদের বিরুদ্ধে তিনি বিষ্ণুপুর থানায় ছেলের আত্মহত্যার ঘটনায় প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগ দায়ের করেছেন।

যদিও অভিযুক্ত, অয়ন বাবুর পাল্টা দাবী, এস,এম,এসে এমন কিছু লিখা ছিল না। যার জন্য আত্মহত্যার মতো ঘটনা ঘটবে! তিনি, তার বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ ভিত্তিহীন বলে দাবী করে জানান,ছাত্রের মৃত্যু খুবই বেদনাদায়ক ঘটনা। তবে,তিনি এই মৃত্যুর জন্য কোনোরকম প্ররোচনা দেন নি।

অন্যদিকে, তরতাজা এই ছাত্রের অকাল মৃত্যুতে ছাত্র,ছাত্রী থেকে অধ্যাপক মহলেও গভীর শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

#শুনুন মৃত ছাত্রের বাবার বক্তব্য :

[playlist type="video" ids="1411"]

Next Story