নজরে ২১

লোকসভা ভোটে ভরাডুবির জের,বিষ্ণুপুর লোকসভার জয়পুর ও ইন্দাসে ব্লক কমিটি ভেঙে কোর কমিটি গড়ল তৃণমূল।

লোকসভা ভোটে ভরাডুবির জের,বিষ্ণুপুর লোকসভার জয়পুর ও ইন্দাসে ব্লক কমিটি ভেঙে কোর কমিটি গড়ল তৃণমূল।
X

#বাঁকুড়া২৪X৭প্রতিবেদন : লোকসভা ভোটে ভরাডুবির পর বিষ্ণুপুর লোকসভা কেন্দ্রে র জয়পুর ও ইন্দাস ব্লকে তৃণমূল কংগ্রেসের সাংগঠনিক খোল-নলচে বদলের মধ্য দিয়ে দলের শক্তি বাড়ানোর পথে হাঁটলেন বিষ্ণুপুর তৃণমূল সাংগঠনিক জেলার সভাপতি শ্যামল সাঁতরা। তার জেরে ভেঙ্গে ফেলা হল এই দুই ব্লক তৃণমূল কমিটিও। পদ হারালেন দুই ব্লক সভাপতি। তার বদলে এই দুই ব্লকে নুতন করে গড়ে তোলা হল ব্লক ভিত্তিক কোর কমিটি। এই নুতন কমিটিতে স্থান পেলেন হালে বসে যাওয়া পুরানো কয়েকজন তৃনমুলের স্থানীয় নেতাও। পাশাপাশি, আনা হয়েছে কিছু নুতন মুখও। জেলার দুই লোকসভায় হারের পর বাঁকুড়া জেলা সভাপতি অরুপ খাঁ কে সরিয়ে জেলাকে সাংগঠনিক ভাবে লোকসভা ভিত্তিক দুই ভাগ করে, জেলায় দুই নুতন সভাপতি নির্বাচন করে, তাদের ওপর দায়িত্ব দেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। পাশাপাশি, বাঁকুড়ার পর্যবেক্ষকের পদ থেকেও হটিয়ে দেওয়া হয় অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে। সেই পদে বসানো হয় শুভেন্দু অধিকারিকে। এই রদবদলের পরই জেলায় তৃনমুলকে রি -ফর্ম করার কাজে গুরুত্ব দেওয়া হয়। তারই অঙ্গ হিসেবে আজ ইন্দাস ও জয়পুরে ব্লক কমিটি ভেঙে দেওয়া হল। প্রাথমিক ভাবে এই দুই ব্লক থেকে এ-ই কাজ শুরু হলেও পরে,পরে অন্য ব্লক গুলোতেও একই ভাবে চলবে তৃণমূল। বিষ্ণুপুর সাংগঠনিক জেলার সভাপতি শ্যামল সাঁতরা জানান,আগামী ২১ জুলাইয়ের আগে বিষ্ণুপুরের আরো চারটি ব্লকে একই ভাবে ব্লক কমিটি ভেঙে কোর কমিটি গড়া হবে। তবে যে ব্লক গুলোর ব্লক সভাপতিরা সন্তোষজনক কাজ কর্ম করেছেন, সেই ব্লক গুলোর ব্লক কমিটি ও ব্লক সভাপতি কে বহাল রাখা হবে। তিনি জানান, জয়পুরে ইয়ামিন শেখ কে কনভেনার করে ৯ জনের কোর কমিটি গড়া হয়েছে। আর ইন্দাসে বিধায়ক গুরুপদ ম্যেটে কে কনভেনার করে ১৩ জনের কোর কমিটি গড়া হয়েছে। পরে তা বাড়িয়ে ১৫ জন করা হবে। আজ থেকে এই কমিটি ঘোষণা হওয়ার সাথে,সাথে ব্লক কমিটি পুরোপুরি বিলোপ হয়ে গেল।

#দেখুন 🎦 ভিডিও। 👇[embed] href="https://www.bankura24x7.com/suvendus-remedies-for-recovery-of-tmc-organisation-at-bishnupur/img-20190604-wa0032/" rel="attachment wp-att-5266">

Next Story