নজরে ২১

বিষ্ণুপুরে বেহাল নিকাশী ব্যবস্থার প্রতিবাদে ভোট বয়কটের ডাক দুটি ওয়ার্ডে,সমস্যা সমাধানে ২০ লাখ দেওয়ার প্রতিশ্রুতি সাংসদ সৌমিত্রের।

বিষ্ণুপুরে বেহাল নিকাশী ব্যবস্থার প্রতিবাদে ভোট বয়কটের ডাক দুটি ওয়ার্ডে,সমস্যা সমাধানে ২০ লাখ দেওয়ার প্রতিশ্রুতি সাংসদ সৌমিত্রের।
X

#বাঁকুড়া২৪X৭প্রতিবেদন (অমিত শর্মা,বিষ্ণুপুর) : পুর ভোটের দিনক্ষণ ঘোষনা হওয়ার আগেভাগেই বাসিন্দাদের ভোট বয়কটের ঘোষনাকে কেন্দ্র করে আলোড়ন পড়ে হেল জেলার বিষ্ণুপুর পুরসভার ৬ ও ৭ নাম্বার ওয়ার্ডে। এই দুই ওয়ার্ডের ভোটাররা এলাকায় বেহাল নিকাশী ব্যবস্থা,ও এলাকায় অনিয়মিত জঞ্জাল সাফাই এবং অপরিস্কার নর্দমার প্রতিবাদে আসন্ন পুরভোটে ভোট বয়কটের ডাক দিয়ে দেওয়াল লিখন ও পোস্টার সাঁটিয়ে প্রচার শুরু করে দিয়েছেন। এই দুই ওয়ার্ডের বাসিন্দারা সাফ জানিয়ে দিয়েছেন যে,তাদের সমস্যা না মিটলে তারা কেও ভোটের দিন বুথমুখী হবেন না। সাক্ষীগোপাল পাড়ার বাসিন্দাদের এই ভোটবয়কটের ডাক কে হাতিয়ার করে শাসক দলের বিরুদ্ধে জনমত তৈরীতে নেমে পড়েছেন খোদ বিষ্ণুপুরের সাংসদ তথা বিজেপি নেতা সৌমিত্র খাঁ। তিনি এলাকায় গিয়ে সেখানকার বাসিন্দাদের সমস্যা মেটাতে, সাংসদ উন্নয়ন তহবিল থেকে ২০ লাখ টাকা দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেন। তিনি বলেন বিষ্ণুপুরের মানুষ পুরসভার ওপর কতটা বীতশ্রদ্ধ তা আজকের এই ভোট বয়কটের ডাক দেওয়াতেই প্রমানিত। ফলে শাসক দল এই পুরসভায় ক্ষনতায় থাকার নৈতিক অধিকার হারিয়েছে সেটা টের পাচ্ছে। অন্যদিকে, এই ইস্যুতে বিজেপি ভোটের ময়দানে নেমে পড়ার খবর পেয়ে টনক নড়ে বিষ্ণুপুরের পুর প্রধান শ্যাম মুখোপাধ্যায়ের। তিনি ড্যামেজ কন্ট্রোল করতে বাসিন্দাদের সাথে বৈঠকে বসে রফা করবেন এমন ইঙ্গিত দিয়েছেন সংবাদ মাধ্যমের ক্যামেরায়। রাজ্যে পুরভোটের দিন ঘোষণার আগেই ভোট বয়কটের ডাক কার্যত অস্বস্তিতে ফেলেছে শাসক দল তৃণমূলের জেলা নেতৃত্বদের তা বলাই বাহুল্য।

#দেখুন 🎦 ভিডিও। 👇[embed] href="https://www.bankura24x7.com/11th-february-suvendu-adhikari-has-fixed-the-target-of-gathering-of-50000-booth-workers-at-the-chief-minister-mamata-banerjees-meeting-at-bankura/img-20200203-wa0043/" rel="attachment wp-att-7962">

Next Story